1. admin@dailybanglavoice24.com : admin :
সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ১২:১৫ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
রাজশাহীতে বাকি টাকা চাওয়ায় কর্মচারীকে কুপিয়ে হত্যা, ২ আসামির মৃত্যুদন্ড,, ট্রাফিক পুলিশ সদস্য আব্দুস সামাদ ৫৭ বছর বয়সে এসএসসি পাশ করে অবাক করে দিলেন দেশবাসীকে,, গণপরিবহনে চাঁদাবাজির সময় RAB-5 এর অভিযানে আটক ২১,, দৈনিক বাংলা ভয়েস 24.com এর স্টাফ রিপোর্টার মুনজুর দীর্ঘদিন যাবত অসুস্থ,, পুঠিয়ায় মাদক বিক্রির প্রতিবাদ করায় মাদক সম্রাট মনিরের হাতে যুবক কে জখম করার অভিযোগ দূর্গাপুরে আসামী প্রভাবশালী হওয়ায় ভিকটিম কুলসুম ন্যায় বিচার হতে বঞ্চিত। দূর্গাপুরে আসামী প্রভাবশালী হওয়ায় ভুক্ত ভুগীর মামলা খারিজ রাজশাহীর পুঠিয়ায় বাস ও মোটরসাইকেল সংঘর্ষে নিহত (২ ) “ভিলেজ ফুড” গ্রামের খাঁটি পন্য নিয়ে গ্রাহকদের আস্থার প্রতিক হয়ে উঠেছে বাংলা ভয়েস দূর্গাপুর উপজেলা প্রতিনিধি নরেশ কুমার কে অব্যহতি

“”পাট ক্ষেত নিয়ে দুর্ভোগে রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলার কৃষকেরা””

মো: মন্জুর রহমান,স্টাফ রিপোর্টার
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ৭ আগস্ট, ২০২৩
  • ৩৩২ বার পঠিত

পাট ক্ষেত নিয়ে দুর্ভোগে পড়েছেন রাজশাহী জেলার পুঠিয়া উপজেলার কৃষকেরা, আজ পুঠিয়া উপজেলার শিলমাড়িয়া ইউনিয়নের কৃষকদের পাট ক্ষেতের বেশ কিছু এলাকা ঘুরে দেখা গেছে প্রতিবছরের তুলনায় এ বছরে বৃষ্টি না হওয়ায় চাষিরা পাটের সঠিক পরিচর্যা না করতে পারায় পাটের ফলন প্রতিবছরের ন্যায় তুলনামূলক অনেক কম হয়েছে, এদিকে কৃষকদেরকে তাদের পাট ক্ষেত সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করলে তারা বলেন একদিকে এ বছরে বৃষ্টি ভারী বর্ষণ একেবারেই নাই বিধায় তাহারা পাট ক্ষেত সঠিক ভাবে ফলন ফলাতে পারেননি, এছাড়াও যেসব এলাকা থেকে পানি এসে এই এলাকাগুলোতে বন্যা হত কিন্তু প্রত্যেকটা নদী নালা বন্ধ হয়ে যাওয়ার ফলে প্রত্যেকটা গ্রামের প্রত্যেকটা এলাকাতে প্রভাবশালী কিছু ক্ষমতাসীন অসাধু লোকদের ফসলি জমিতে পুকুর খনন করার ফলে উপর এলাকার পানি গুলো এই এলাকাতে আসতে পারতেছে না সেই সাথে নাই কোন ভারী বর্ষণ আর বন্যার পানি না থাকায় কৃষকেরা পাট কাটতে না পারায় নষ্ট হচ্ছে মরে যাচ্ছে তাদের জমিতে হাজার হাজার একর জমির পাটক্ষেত, কারণ তারা পাট কেটে পাট পছন করার জন্য পাচ্ছে না পানি এতে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে সাধারণ গরিব কৃষক, একদিকে বৃষ্টি বর্ষণ না হওয়ায় পাটের সঠিক পরিচর্যা না করতে পারায় পাটের ফলন হয়েছে তুলনামূলক অর্ধেক, বন্যার পানি না থাকায় পারতেছে না পাট কাটতে ফলে জমিতেই মরে যাচ্ছে পাট, অপরদিকে বিভিন্ন এলাকাতে ঘুরে কৃষকদের সাথে আলাপ করে জানতে পারি যে কৃষকদের প্রতি বিঘাতে যে পরিমাণ অর্থ খরচ হয়েছে পাটের দাম অত্যন্ত কম হওয়ায় এবং ফলন কম হওয়ায় কৃষকদেরকে গুনতে হচ্ছে বিঘা প্রতি প্রায় ১৫ থেকে ১৬ হাজার টাকা লোকসান, কৃষকদের মনে তৈরি হয়েছে হাহাকার কে দেখবে তাদের দুর্দশা দেখার কেউ নাই, কেমনে পূরণ হবে তাদের লোকসানের পরিমাণ, তাই তাহারা “দৈনিক বাংলা ভয়েস 24.com” এর মাধ্যম দিয়ে সরকারের কাছে আকুল আবেদন জানিয়েছেন সরকার যেন এই গরিব অসহায় কৃষকদের পাশে দাঁড়ান এটাই তাদের আশা এবং চাওয়া।

Facebook Comments Box
এ জাতীয় আরও খবর